Sign In

Blog

Latest News
বেরোবিতে ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হওয়া সেই শিক্ষার্থীকে নিয়ে তোলপাড়!

বেরোবিতে ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হওয়া সেই শিক্ষার্থীকে নিয়ে তোলপাড়!

বেরোবিতে ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হওয়া সেই শিক্ষার্থীকে নিয়ে তোলপাড়!

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের অনার্স প্রথম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষায় অন্য দুই ইউনিটে ফেল করেও বি ইউনিটের তৃতীয় শিফটে রেকর্ড মার্কস নিয়ে প্রথম হয়েছেন এক শিক্ষকের বোন মিশকাতুল জান্নাত।

এতে তোলপাড় সৃষ্টি হলে এ বিষয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার রেজিস্ট্রার আবু হেনা মুস্তাফা কামাল স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশের মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ফাইন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. নুর আলম সিদ্দিককে আহ্বায়ক করে ৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির অপর দুই সদস্য রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রাজিয়া সুলতানা এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রভাষক সানজিদ ইসলাম খান। কমিটিকে দ্রুততম সময়ের মধ্যে রিপোর্ট দেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, ভর্তি পরীক্ষায় ‘এ’ এবং ‘এফ’ ইউনিটে ফেল করেও ‘বি’ইউনিটে রেকর্ড পরিমাণ মার্কস নিয়ে প্রথম স্থান অধিকার করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক ইমরানা বারীর ছোট বোন মিসকাতুল জান্নাত। ‘বি’ ইউনিটে ওই শিক্ষার্থী যে পরিমাণ মার্কস পেয়েছে ছয় ইউনিটের ১৬ শিফটে কেউ সে পরিমাণ মার্কস তুলতে পারেনি। বিষয়টি নিয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে সমালোচনার ঝড় উঠেছে।

বিষয়টি সুষ্ঠু তদন্ত করে সমাধান না হওয়া পর্যন্ত ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি কার্যক্রম বন্ধের দাবি জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সব শিক্ষক। এ বিষয়ও ভালোভাবে খতিয়ে দেখার দাবি তুলেছেন শিক্ষকরা।

বঙ্গবন্ধু পরিষদের সহ-সভাপতি তরিকুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান বলেন, ‘এই ঘটনার চূড়ান্ত তদন্ত হওয়া উচিত। শুধু বিশ্ববিদ্যালয়ের তদন্ত কমিটি নয় শিক্ষা মন্ত্রণালয় বা ইউজিসি থেকে তদন্ত কমিটি করে ঘটনার তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।’

নীল দলের সাধারণ সম্পাদক আসাদ মণ্ডল বলেন, ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় সমস্যা হওয়ার মূল কারণ স্বৈরাচারীভাবে ভিসির এই ইউনিটের ডিনশিপ নিয়ে থাকা।

বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. মো. গাজী মাজহারুল আনোয়ার বলেন, ‘বিষয়টি গভীরভাবে তদন্ত হওয়া উচিত।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ দেশের বাইরে থাকায় তার সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.