Sign In

Blog

Latest News
মার্কিন নৌ-ঘাঁটিতে সৌদি প্রশিক্ষণার্থীর গুলিতে নিহত ৩

মার্কিন নৌ-ঘাঁটিতে সৌদি প্রশিক্ষণার্থীর গুলিতে নিহত ৩

মার্কিন নৌ-ঘাঁটিতে সৌদি প্রশিক্ষণার্থীর গুলিতে নিহত ৩

মার্কিন নৌ-ঘাঁটিতে শুক্রবার সৌদি বাহিনীর এক প্রশিক্ষণার্থীর এলোপাতাড়ি গুলিতে তিন ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। পরে ওই সৌদিকে গুলি করে হত্যা করেছে পুলিশ। বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে এমন তথ্য জানা গেছে।

এ ঘটনার পরপরেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে শোক জানিয়ে বার্তা দিয়েছেন বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ।

ফ্লোরিডার ফেনসাকৌলার নৌবিমান ঘাঁটির একটি শ্রেণিকক্ষে এই গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এতে শেরিফের ডেপুটিসহ আরও আট ব্যক্তি আহত হয়েছেন।

গোলাগুলিতে আহত আটজনকে ব্যাপটিস্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে ওই হাসপাতালের মুখপাত্র জানিয়েছেন।

ফ্লোরিডার গভর্নর রন ডিস্যান্টিস বলেন, হামলাকারী সৌদি আরব থেকে এসেছেন। ৯/১১ হামলায় জড়িত ১৯ জনের মধ্যে ১৫ জনই সৌদি নাগরিক ছিলেন।

এক সংবাদ সম্মেলনে ডিস্যান্টিস বলেন, এই ব্যক্তি বিদেশি নাগরিক, সৌদি বিমান বাহিনীর অংশ হওয়ার এবং আমাদের দেশে প্রশিক্ষণ নেয়ার ঘটনায় নানা প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে।

‘আমি মনে করি, আক্রান্তদের ক্ষতিপূরণে সৌদি আরবের সরকার অবশ্যই ভালো কিছু করবে। এই ব্যক্তি তাদের নাগরিক হওয়ায় সৌদিরা এখানে ঋণী হয়ে থাকবেন।’

ক্যাপ্টেন টিমথি কিনসেলা বলেন, হামলাকারী নৌবিমানের প্রশিক্ষণার্থী। তার নাম প্রকাশ করা হয়নি। ঘাঁটিতে থাকা দুই শতাধিকের বেশি বিদেশি শিক্ষার্থীর তিনি একজন।

শুক্রবার ট্রাম্পকে ফোন দিয়েছেন সৌদি বাদশাহ সালমান। তিনি এই হামলার নিন্দা জানিয়েছেন। সৌদি বাদশাহ জোর দিয়ে বলেন, হামলাকারীর এই ঘৃণ্য অপরাধ সৌদি জনগণের প্রতিনিধিত্ব করছে না।

আলাবামা রাজ্যের সীমান্তবর্তী ফ্লোরিডার এই ঘাঁটি যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর প্রধান প্রশিক্ষণ কেন্দ্রগুলোর একটি। মার্কিন নৌবাহিনীর অ্যারোবেটিক ফ্লাইট ডেমোনস্ট্রেশন স্কয়াড্রন দ্য ব্লু অ্যাঞ্জেলস’র কার্যক্রমও এই ঘাঁটিতে।

এই ঘাঁটিতে ১৬ হাজারের বেশি সামরিক এবং ৭ হাজার ৪০০ বেসামরিক কর্মী নিয়োজিত আছেন।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.